মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
খবর

মীরসরাইয়ে ইউএনও'র হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে থেকে রক্ষা পেলো স্কুল ছাত্রী শামীমা

মীরসরাইয়ে বাল্য বিয়ে বন্ধ করে দিলেন ইউএনও সাইফুল কবির। বুধবার (৪ অক্টোবর) মীরসরাই সদর ইউনিয়নের মিঠাছড়া বাজারের সাসা কমিউনিটি সেন্টারে ওই বিয়ে বন্ধ করে দেয়া হয়।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, বুধবার উপজেলার ১২নং খৈইয়াছড়া ইউনিয়নের পূর্ব খৈইয়াছড়া গ্রামের প্রবাসী তাজুল ইসলামের মেয়ে শামীমা আক্তারের (১৫) এর সাথে ফেনী ছাগলনাইয়া উপজেলার ফরহাদ নগর গ্রামের ইকবাল হোসেনের বিয়ে দিন ধার্য হয়। সে অনুযায়ী মিঠাছড়া বাজারের সাসা কমিউনিটি সেন্টারে বিয়ের সব আয়োজন করা হয়। কিন্তু বুধবার দুপুর বাল্য বিয়ের অভিযোগ পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল কবির, সমাজসেবা কর্মকর্তা সাবরিনা রহমান লিনা ও খৈইয়াছড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহেদ ইকবাল চৌধুরী উপস্থিত হয়ে বিয়ে বন্ধ করে দেন।

খৈইয়াছড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহেদ ইকবাল চৌধুরী জানান, কনে শামীমা আক্তার খৈইয়াছড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেনী ছাত্রী। এর আগেও তাকে বিয়ে দেয়ার চেষ্টাা করলে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে বিয়ে বন্ধ করে দেয়া হয়।আজ আবার বিয়ে আয়োজন করলে ইউএনও সাইফুল কবির উপস্থিত হয়ে বিয়ে বন্ধ করে দেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল কবির জানান, বাল্য বিয়ের অভিযোগ পেয়ে সাসা কমিউনিটি সেন্টারে গিয়ে বর ও কনের অভিভাবকদের বিয়ে বন্ধ করার নির্দেশ দেন। তবে ওই সময় কমিউনিটি সেন্টারে বর ও কনে কাউকে পাওয়া যায় নি ।

 

 

ছবি


ফাইল


প্রকাশনের তারিখ

২০১৭-১০-০৪

আর্কাইভ তারিখ

২০১৭-১১-৩০